Gaibandha

গাইবান্ধা
গাইবান্ধা নামকরণ সম্পর্কে কিংবদন্তী প্রচলিত আছ, প্রায় পাচ হাজার বছর আগে মৎস্য দেশের রাজা বিরাটের রাজধানী ছিল গাইবান্ধার গোবিন্দগজ থানা এলাকায়। বিরাট রাজার গো-ধনের কোন তুলনা ছিল না। তার গাভীর সংখ্যা ছিল ষাট হাজার। মাঝে মাঝে ডাকাতরা এসে বিরাট রাজার গাভী লুণ্ঠন করে নিয়ে যেতো। সে জন্য বিরাট রাজা একটি বিশাল পতিত প্রান্তরে গো-শালা স্থাপন করেন। গো-শালাটি সুরক্ষিত এবং গাভীর খাদ্য ও পানির সংস্থান নিশ্চিত করতে। নদী তীরবর্তী ঘেসো জমিতে স্থাপন করা হয়। সেই নির্দিষ্ট স্থানে গাভীগুলোকে বেঁধে রাখা হতো। প্রচলিত কিংবদন্তী অনুসারে এই গাভী বেঁধে রাখার স্থান থেকে এতদঞ্চলের কথ্য ভাষা অনুসারে এলাকার নাম হয়েছে গাইবাঁধা এবং কালক্রমে তা গাইবান্ধা নামে পরিচিতি লাভ করে।
বিখ্যাত খাবার:
রসমঞ্জরী
বিখ্যাত স্থান:
বর্ধনকুঠি
নলডাঙ্গার জমিদারবাড়ি
বামনডাঙ্গার জমিদারবাড়ি
ভতরখালীর কাষ্ঠ কালী
রাজা বিরাট
ভবানীগঞ্জ পোস্ট অফিস ও বাগুড়িয়া তহশিল অফিস
বালাসী ঘাট
প্রাচীন মাস্তা মসজিদ
মীরের বাগানের ঐতিহাসিক শাহসুলতান গাজীর মসজিদ