Barisal

বরিশাল

বরিশাল নামকরণ সম্পর্কে বিভিন্ন মতভেদ রয়েছে। এক কিংবদন্তি থেকে জানা যায় যে, পূর্বে এখানে খুব বড় বড় শাল গাছ জন্মাতো, আর এই বড় শাল গাছের কারণে (বড়+শাল) বরিশাল নামের উৎপত্তি। কেউ কেউ দাবি করেন, পর্তুগীজ বেরি ও শেলির প্রেমকাহিনীর জন্য বরিশাল নামকরণ করা হয়েছে। অন্য এক কিংবদন্তি থেকে জানা যায় যে, গিরদে বন্দরে (গ্রেট বন্দর) ঢাকা নবাবদের বড় বড় লবণের গোলা ও চৌকি ছিল। ইংরেজ ও পর্তুগীজ বণিকরা বড় বড় লবণের চৌকিকে ‘বরিসল্ট’ বলতো। অথাৎ বরি (বড়)+ সল্ট(লবণ)= বরিসল্ট। আবার অনেকের ধারণা এখানকার লবণের দানাগুলো বড় বড় ছিল বলে ‘বরিসল্ট’ বলা হতো । পরবর্তিতে বরিসল্ট শব্দটি পরিবর্তিত হয়ে বরিশাল নামে পরিচিতি লাভ করে।

 

বিখ্যাত খাবার:

আমড়া

 

বিখ্যাত স্থান:

দুর্গাসাগর

কালেক্টরেট ভবন

চাখার প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘর

রামমোহনের সমাধি মন্দির

সুজাবাদের কেল্লা

সংগ্রাম কেল্লা

শারকলের দুর্গ

গির্জামহল্লা

বেলস পার্ক

এবাদুল্লা মসজিদ

কসাই মসজিদ

অক্সফোর্ড গির্জা

শংকর মঠ

মুকুন্দ দাসের কালীবাড়ি

ভাটিখানার জোড়া মসজিদ

অশ্বিনী কুমার টাউন হল

চরকিল্লা

এক গম্বুজ মসজিদ

সাড়ে তিন মণ ওজনের পিতলের মনসা

আবদুর রব সেরনিয়াবাদ সেতু

উলানিয়া জমিদার বাড়ি